ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর যে ১১ টি কারণে আপনার ট্রাফিক কমে যেতে পারে | Techtunes


আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন টেকটিউনস কমিউনিটি? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে।

ওয়েবসাইট মাইগ্রেশন দীর্ঘমেয়াদী সফলতার জন্য দারুণ একটি পদক্ষেপ তবে ছোট খাট ভুলে আপনার হতে পারে দ্বিগুণ ক্ষতি। ঠিক ভাবে Redirect করতে না পারা, robots.txt ইন্সটলে ভুল করা অথবা ইন্টারনাল লিংক ব্রোকেনের কারণে আপনার ট্রাফিক রাতারাতি কমে যেতে পারে৷ তাই ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর পর আপনার জানা জরুরী ওয়েবসাইটে অর্গানিক ট্রাফিক আগের মত আসছে কিনা।

মাইগ্রেশনের পর ওয়েবসাইট চেক করা

আপনার ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর চাইলে চেক করে দেখতে পারেন কোন ঝামেলা আছে কিনা, এজন্য আপনি ScreamingFrog টুলটি ব্যবহার করতে পারেন।

ScreamingFrog আপনার ওয়েবসাইটকে ভাল ভাবে পর্যালোচনা করে সঠিক রেজাল্ট জানাবে। টুলটি নিচের চেক-লিস্ট অনুযায়ী ফলাফল দেবে।

  • Redirects
  • Broken links
  • Duplicate content
  • Metadata issues
  • txt blocked URLs

ScreamingFrog টুলটি দিয়ে আপনার ওয়েবসাইট স্ক্যান করুন এবং জানুন কোন সমস্যা আছে কিনা।

১১ টি কারণে আপনার ট্রাফিক কমে যেতে পারে

চলুন জেনে নেয়া যাক কি কি কারণে আপনার ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর ট্রাফিক কমে যেতে পারে।

১. Canonical Tag এর পরিবর্তন

ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর আপনার ওয়েবসাইটের বিভিন্ন পেজ বা আর্টিকেলের Canonical Tag পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে। এই ধরনের পরিবর্তন আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিকের উপর দারুণ প্রভাব ফেলতে পারে। ধরুন আপনার একটি আর্টিকেল গুগলে র‍্যাংক করা আছে এখন যদি সেই আর্টিকেলের লিংক পরিবর্তন হয়ে যায় তাহলে সেটা ইউজাররা খুঁজে পাবে না।

  • Canonical Tag পরিবর্তনের ফলে,
  • ইউজার Not Found বা ভিন্ন কোন পেজে চলে যেতে পারে
  • সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্টে ক্লিক করার পর ভিন্ন পেজ ওপেন হতে পারে

২. Robots.txt ইনডেক্স না হওয়া

আপনি ভাল করে যাচাই করুন নতুন ওয়েবসাইটে সঠিক ভাবে robots.txt ফাইল ইনডেক্স আছে কিনা। যদি ইনডেক্স না থাকে তাহলে বুঝবেন এর জন্যই ট্রাফিক কমেছে।

গুগলের Robots.txt Tester টুল দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটের Robots.txt ফাইল চেক করুন। যদি কোন কারণে ইনডেক্স না হয় তাহলে পুনরায় এটি ওয়েবসাইটে ইন্সটল করুন।

৩. Meta Data সংক্রান্ত ঝামেলা

ওয়েবসাইট ট্রান্সফারের সময় আপনার Meta Data ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। Meta Data বলতে মূলত Title Tag, Meta Description কে বুঝাতে চাচ্ছি।

আপনি ScreamingFrog এর সাহায্যে চেক করে দেখুন মেটাডাটা ঠিক আছে কিনা। যদি Meta Data ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে নতুন করে সেগুলো সেটআপ করুন। আপনি গুগলে “site:URL.com” লিখে আগের Meta Data দেখতে পারবেন।

যেহেতু কিওয়ার্ড, ট্যাগ, ইত্যাদি নতুন করে সেট করা বেশ সময় সাপেক্ষ ব্যাপার সেহেতু আপনি আগের ব্যাকআপ ফাইলও ব্যবহার করতে পারেন।

৪. Page Speed হ্রাস পাওয়া

ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের ফলে অথবা সার্ভার পরিবর্তনের ফলে আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড কমে যেতে পারে। তাই আপনাকে মাইগ্রেশনের পর পর চেক করতে হবে ওয়েবসাইটের স্পীড ঠিক আছে কিনা।

সঠিক Page Speed নিশ্চিত করতে,

  • ভেরিফাই করুন CDN সঠিক সেট করা হয়েছে কিনা এবং ঠিক মত কাজ করছে কিনা।
  • পুরো ওয়েবসাইটের Caching সিস্টেম সঠিক ভাবে কনফিগারেশন করুন এবং কাজ করছে কিনা যাচাই করুন।
  • PageSpeed Insights এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড চেক করুন এবং কোন বিষয় গুলো পরিবর্তন করা জরুরী সেটা খোঁজে বের করুন

সর্বশেষ আপনার সার্ভারের স্পীড যাচাই করুন প্রয়োজনে ওয়েব হোস্টিং এর সাপোর্ট নিন।

৫. ইন্টারনাল লিংক

ওয়েবসাইটে ট্রাফিক ধরে রাখার অন্যতম একটি পদ্ধতি, সঠিক ভাবে ইন্টারনাল লিংক সাজানো। ইন্টারনাল লিংক গুলো সুশৃঙ্খল ভাবে সাজানো থাকলে সার্চ ইঞ্জিনও সহজে ওয়েবসাইটকে ইনডেক্স করতে পারে।

ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর নিশ্চিত হোন ওয়েবসাইটের ইন্টারনাল লিংক গুলো ভাল মত সাজানো হয়েছে কিনা।

৫. সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স সংক্রান্ত জটিলতা

নতুন সার্ভারে ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের ফলে অনেক ক্ষেত্রে ইনডেক্স হতে সমস্যা হতে পারে এবং এটি ট্রাফিক লসের কারণ হতে পারে।

Google Search Console এ লগইন করুন Index থেকে Coverage এ ক্লিক করুন error, valid with warning, valid or excluded অপশন গুলো খেয়াল করুন। কোন সমস্যা পেলে ফিক্স করুন।

৭. ভুল Redirects

ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনের পর জরুরী হচ্ছে Redirect ঠিক মত হচ্ছে কিনা যাচাই করা। সঠিক ভাবে Redirect এর জন্য 301 redirects টুল গুলো ব্যবহার করতে পারেন।

Redirection খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় কারণ আপনার গুগলকে জানাতে হবে আপনার ওয়েবসাইট কোথায় মাইগ্রেশন হয়েছে।

ScreamingFrog টুলের মাধ্যমে চেক করুন Redirect ইস্যু আছে কিনা। Redirect ইস্যু সমাধানে,

  • redirect loop ক্লিনআপ করুন
  • redirect চেইন ঠিক আছে কিনা যাচাই করুন
  • পুরনো URL গুলো নতুন URL এ সঠিক ভাবে রিডিরেক্ট হয়েছে কিনা দেখুন। 301 direct, দিয়ে URL আপডেট করতে পারেন

৮. External Link

সার্চ ইঞ্জিন র‍্যাংকিং এ এক্সটারনাল লিংক কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা আমরা সবাই জানি। যদি আপনার ওয়েবসাইটের ভাল লিংক বিল্ডিং থাকে তাহলে সেটা আপনাকে প্রচুর অর্গানিক ট্রাফিক এনে দেবে।

মাইগ্রেশনের পর আপনি অন্য সাইট মালিকদের কে, তাদের লিংক আপনার নতুন ওয়েবসাইট অনুযায়ী আপডেট করতে অনুরোধ করতে পারেন। যদি তাদের লিংক ব্রোকেন হয়ে যায় বা আপনার আগের URL এ চলে যায় তাহলে ট্রাফিক তুলনামূলক ভাবে কমে যেতে পারে।

৯. হোস্টিং ইস্যু

আপনি হয়তো উন্নত মানের সার্ভারে আপগ্রেড বা ভাল CMS এ যাবার জন্যই ওয়েবসাইট মাইগ্রেশনে যাবেন কিন্তু কখনো কখনো ওয়েবহোস্টিং বা প্ল্যাটফর্ম জটিলতার জন্য ট্রাফিক কমে যেতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে প্লাটফর্মে,

  • Firewall সিস্টেম সার্চ ইঞ্জিন বটকে ব্লক করে দিতে পারে। blocking search engine bots
  • কিছু কিছু প্ল্যাটফর্ম JS ব্যবহার করে যেগুলাও সার্চ ইঞ্জিন Bot কে crawl করতে বাধা দিতে পারে।
    সার্ভারদের স্পীড স্লো হতে পারে
    বিভিন্ন সার্ভার বা প্ল্যাটফর্মে Country Restriction থাকতে পারে

সুতরাং নতুন সার্ভার বা প্লাটফর্ম বাছাই করার আগে ভাল মত খোঁজ খবর নিয়ে নিন।

১০. Images

আপনার ওয়েবসাইটের অধিকাংশ ট্রাফিক যদি ইমেজ নির্ভর হয় মানে ইমেজ থেকে যদি প্রচুর ট্রাফিক আসে, তাহলে আপনাকে জানতে হবে ইমেজ ঠিক ভাবে Redirect হচ্ছে কিনা। ইমেজ URL আর ইমেজ যদি ঠিক ভাবে সেটআপ না হয় তাহলে ট্রাফিক হ্রাস পেতে পারে। তাই নিশ্চিত হোন,

  • ইমেজ URL গুলো সঠিক ইমেজে লিংক করা হয়েছে কিনা
  • ইমেজ URL নতুন ডোমেইনে লিংক হয়েছে কিনা

আপনি যদি CDN ব্যবহার করেন তাহলে আশা করছি খুব দ্রুত ইমেজ গুলো নতুন ওয়েবসাইটে নিতে পারবেন। কখনো কখনো ইমেজ URL তৈরি করতে আপনি CNAME ব্যবহার করতে পারেন, নিশ্চিত হোন আপনার CNAME নতুন সাইটে পয়েন্ট করছে কিনা।

১১. গুগল আপডেট

আপনার ওয়েবসাইটের সব কিছু ঠিক থাকলেও গুগলের বিভিন্ন আপডেটে আপনার ট্রাফিক কমে যেতে পারে। গুগল প্রায়ই তাদের এলগোরিদমে বিভিন্ন পরিবর্তন নিয়ে আসে। আপনি ট্রাফিক হ্রাসের কারণ হিসেবে কখনো মাইগ্রেশনকে সন্দেহ করলেও এর পেছনে গুগলের আপডেট দায়ী থাকতে পারে।

গুগলের নতুন কোন আপডেট যদি আপনার ওয়েবসাইটের পক্ষে না থাকে তাহলে স্বাভাবিক ভাবেই সার্চ ইঞ্জিন র‍্যাংকিং এ এর প্রভাব পড়তে পারে।

মাইগ্রেশনের আগের পদক্ষেপ

আপনি মাইগ্রেশনের আগে কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে অনেকাংশেই ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে পারেন। মাইগ্রেশনে যাবার আগে অবশ্যই আগের ওয়েবসাইটের পূর্ণ ব্যাকআপ রেখে দিন। কখন কোন কোন বিষয় পরিবর্তন করছেন সেটার রেকর্ড রাখুন। তাছাড়া SEO রিলেটেড সকল পরিবর্তন ট্র‍্যাক করতে আপনি Google Analytics এর Annotations ব্যবহার করতে পারেন।

শেষ কথাঃ

যদি ট্রাফিক হ্রাস পাবার মত ঘটনা ঘটে তাহলে সেটা ধৈর্য সহকারে মোকাবেলা করুন। প্রথমে সমস্যা খুঁজে বের করুন এবং ধীরে সুস্থে সমাধান করুন। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার পর কিছু দিন বা কিছু সপ্তাহ অপেক্ষা করুন।

যদি সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে উপরে বর্ণিত ১১ টি কারণ একটা একটা করে যাচাই করুন।

পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন, আল্লাহ হা-ফেজ।

আরো পড়ুনঃ
Freelancing Course in Bangla

Leave a Comment

RSS
Follow by Email